Main Menu

নৌকা বাইচ ও ভাটি অঞ্চলের চিত্র ফুটে উঠল বাইচার নাটকে

সিলেটের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অন্যতম চালিকা শক্তি সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট আয়োজিত মহান একুশের আলোকে নাট্য প্রদর্শনীর ৭ম দিনে মঞ্চস্থ হয় ‘বাইচাল’। গোলাম সফিকের রচনায় ও অর্ধেন্দু দাসের নির্দেশনায় ১৭দিন ব্যাপী নাট্য প্রদর্শনীর পরিবেশনায় ছিল ‘নগরনাট’।
সিলেটে এযাবৎকালের সর্ববৃহৎ এই নাট্য প্রদর্শনীতে শুক্রবার বন্ধের দিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে নাট্যমোদী দর্শকের উপস্থিতিতে অটোরিয়াম প্রাঙ্গন উৎসব মুখর হয়ে উঠে। সন্ধ্যা ৭টায় অটোরিয়াম মূল মঞ্চে মঞ্চস্থ নাটকটি পিন পতন নিরবতায় দর্শক উপভোগ করেন ‘বাইচাল’ নাটকটি।
নাটক শেষে নাট্য দলের হাতে ফুল ও স্মারক তুলে দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু, মেট্রোপলিটন পুলিশের কর্মকর্তা কামরুল আমিন।
নাট্য পরিষদের পক্ষ থেকে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন (ইমজা)’র নব নির্বাচিত সভাপতি মাহবুবুর রহমান রিপন ও সাধারণ সম্পাদক সজল ছত্রীকে নাটক মঞ্চায়ন শেষে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমেদ চৌধুরী মিশু ও সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত ও নির্বাহী সদস্য ফারজানা সুমী।
১৬টি নাট্য দলের অংশ গ্রহণে ১লা ফেব্র“য়ারি থেকে রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে শুরু হয় একুশে আলোকে নাট্য প্রদর্শনী।
‘বাইচাল’ নাটকে ফুটে উঠে বাংলার ঐতিহ্যের একটি বড় অংশ জুড়ে থাকা নৌকা বাইচ। যার সাথে বাঙালী মাত্রই একটা যুগসূত্র স্থাপিত হয়ে যায়। বিশেষত ভাটি বাংলার মানুষের জীবনযাত্রা নৌকা বাইচ ছাড়া পূর্ণতা পায় না। তাই নৌকা বাইচ নিয়ে ভাটি অঞ্চলে জন্ম নিয়েছে বেশ মিথ ও লোকগাথা। এরকম একটি লোকগাথা অনুসারে ভাটি অঞ্চলের নৌকা বাইচের উৎপত্তি ও মোগল আমলের ভাটি অঞ্চলের ইতিহাসের সাথে যোগসাজস নিয়েই ‘বাইচাল’ নাটকের শুরু। এই নাটকে প্রতিনিধিশীল চরিত্র প্রদোষ মাস্টার, দুলাল চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কফিল উদ্দিনের নৌকা বাইচকে টিকেয়ে রাখার আকুলতা আছে। আছে ভাটি বাংলার শাসত অসাম্প্রদায়িক গ্রামীন জীবন।
নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয়ে করেন মোজাম্মিল হোসাইন, অনির্বান রায়, পিয়াস খান, জয়া হোসাইন, রনি ভূষণ দাস, রাজন পাল, সপ্তর্ষি দাস, জ্যোতি প্রকাশ দাস তালুকদার, দিবপ্রিয়া পাল, রায়হান চৌধুরী সৈকত, উজ্জ্বল চক্রবর্তী, হৃদয় মজুমদার অপু, শ্যামলী দাস ও রূপালী দাস।

আজ শনিবার ১৭দিনব্যাপী নাট্যোৎসবের অষ্টম দিনে দর্পন থিয়েটার মঞ্চায়ন করবে ‘হট্ট মালার ওপারে’ নাটক। আগামী ১৭ ফেব্র“য়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায় রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়াম মঞ্চে নাটক মঞ্চায়িত হবে। নাটকের প্রবেশপত্র হল কাউন্টারে বিকেল ৫টা থেকে পাওয়া যাবে। ১৭দিনব্যাপী নাট্য প্রদর্শনীতে সহযোগিতা করছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়, সিলেট সিটি কর্পোরেশন ও জেলা পরিষদ, সিলেট।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *