Sun. Mar 29th, 2020

Onesylhet24.com

Online News Paper

প্রতিপক্ষের হামলায় ফটো সাংবাদিক সোহেলসহ আহত ২

সিলেট শহরতলীর টুকেরবাজার ইউনিয়নের সাহেবেরগাঁও গ্রামে ভূমি বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় ফটো সাংবাদিক সোহেল আহমদ সহ তার বোন গুরুতর আহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সকালে জালালাবাদ থানাধিন সাহেবেরগাঁও গ্রামে ছমির উদ্দিনের বাড়িতে।

এ ব্যাপারে ছমির উদ্দিনের ছেলে আহত সোহেলের ভাই জুয়েল আহমদ বাদী হয়ে একই গ্রামের মৃত রফিক উদ্দিনের ছেলে আল-আমিন, বিলাল, জুনেদ, আব্দুস সালাম ও তার ছেলে রাজু আহমদ, মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে আব্দুস সত্তার, আব্দুস সালামের স্ত্রী জুবেরিয়া বেগম এই ৭ জনের নাম উল্লেখ করে আরো ৩/৪ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে জালালাবাদ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আসামীদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বাদী পক্ষের ভুমি বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় বিবাদীগণ দেশীয় অস্ত্রসশস্ত্র নিয়ে সঙ্গবদ্ধ হয়ে বাদীপক্ষ ঘুমে থাকা অবস্থায় জাতীয় দৈনিক যায়যায় দিন ও সিলেটের জৈন্তাবার্তার ফটো সাংবাদিক সোহেল আহমদ এর উপর লাঠি-সোটা দ্বারা এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করে।

এতে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য নিলা-ফুলা জখম হয়। এক পর্যায়ে সোহেলকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে তার মাথায় কোপ মারলে মারাত্মক কাটা রক্তাক্ত জখম হয়। সোহেলে চিৎকার শোনে তাকে বাচাতে তার বোন স্বপ্না বেগম এগিয় আসলে তাকেও এলোপাতাড়ি মারপিট করে আহত করে। এ সময় আসামীগণ স্বপ্নার গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয় এবং ঘরে রক্ষিত ১৭,৪৫০ টাকা লুট করে। আসামীগণ ঘরের আসবাবপত্র ভাঙ্গচুর করে আনুমানিক ৭০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে। তাদের চিৎকার শোনে বাদী জুয়েল আহমদ সহ পরিবারের সদস্যগণ এগিয়ে আসলে তাদেরকেও এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করে। এতে শরীরের বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য নিলা-ফুলা জখম হয়েছে। তাদের সুর-চিৎকার শোনে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে প্রতিপক্ষের হাত থেকে তাদেরকে উদ্ধার করে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে সোহেল আহমদ ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।