Fri. Feb 21st, 2020

Onesylhet24.com

Online News Paper

এবারের একুশে পদক ২০ ব্যক্তি ও এক প্রতিষ্ঠানের

চলতি বছরের একুশে পদকপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। জাতীয় বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ২০ জন বিশিষ্ট নাগরিক ও এক প্রতিষ্ঠানকে এ পদক দেওয়া হবে। 

বুধবার সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পদকপ্রাপ্তদের এ তালিকা প্রকাশ করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেবেন।

পদকপ্রাপ্তরা হলেন- ভাষা আন্দোলনে আমিনুল ইসলাম বাদশা (মরনোত্তর), শিল্পকলা সংগীতে বেগম ডালিয়া নওশীন, শঙ্কর রায় ও মিতা হক, শিল্পকলা নৃত্যে মো. গোলাম মোস্তফা খান, শিল্পকলা অভিনয়ে এস এম মহসীন, শিল্পকলা চারুকলায় অধ্যাপক শিল্পী ড. ফরিদা জামান।

মুক্তিযুদ্ধে তিনজনই মরনোত্তর পদক পেয়েছেন। তারা হলেন- হাজি আক্তার সরদার, আব্দুল জব্বার ও ডা. আ আ ম মেসবাহুল হক ওরফে বাচ্চু ডাক্তার।

এছাড়া সাংবাদিকতায় জাফর ওয়াজেদ (আলী ওয়াজেদ জাফর), গবেষণায় ড. জাহাঙ্গীর আলম ও হাফেজ কারী আল্লামা সৈয়দ মোহাম্মদ ছাইফুর রহমান নিজামী শাহ, শিক্ষায় অধ্যাপক ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া, অর্থনীতিতে অধ্যাপক ড. শামসুল আলম, সমাজসেবায় সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

ভাষা ও সাহিত্যে ড. নুরুন নবী, সিকদার আমিনুল হক (মরণোত্তর) ও বেগম নাজমুন নেসা পিয়ারি এবং চিকিৎসায় অধ্যাপক ডা. সায়েবা আখতার। আর এবার একুশে পদক পাওয়া একমাত্র প্রতিষ্ঠান হলো- গবেষণায় বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট।

ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে সরকার ১৯৭৬ সাল থেকে প্রতিবছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে একুশে পদক দিয়ে আসছে। পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ৩৫ গ্রাম ওজনের একটি স্বর্ণপদক, এককালীন চার লাখ টাকা ও একটি সম্মাননাপত্র দেওয়া হবে।